তোমার জন্য একটি সমাধান

Jesus at the well

তুমি কি জান যে এমন একজন আছেন যিনি তোমার বিষয় সব কিছুই জানেন? তিনি ঈশ্বর যিনি জগৎ ও সব কিছুই সৃষ্টি করেছেন। তুমি এ যাবৎ যা কিছু করেছো তা সব ঈশ্বরের পুত্র, জীশুও জানেন। তিনি অতীত, বর্তমান, এবং ভবিষ্যতও জানেন। তিনি তোমাকে ভালবাসেন এবং পাপ থেকে তোমাকে রক্ষা করার জন্য এ পৃথিবীতে এসেছিলেন। তোমার জীবনে সুখ আনার জন্য তাঁর একটি পরিকল্পনা রয়েছে। 

একদিন যীশু তাঁর বন্ধুদের সঙ্গে জাচ্ছিলেন। তিনি শমরিয়ার একটি গ্রামে উপস্থিত হলেন। যখন তাঁর বন্ধুরা খাবার কিনতে গেলেন তিনি বিশ্রামের জন্য একটি কূয়ার পাশে বসলেন।

যীশু যখন সেখানে বসেছিলেন, একজন মহিলা কূয়া থেকে জল নেবার জন্য এলো। যীশু তাকে বললেন, “আমাকে পান করার জন্য জল দেবে?”

মহিলাটি আশ্চর্য্য হ’ল। “আপনি আমার কাছে জল চাচ্ছেন? আপনি কি জানেন না যে আমি একজন শমরীয় আর শমরীয়দের সঙ্গে জিহুদীদের কোন আচার ব্যবহার নেই?”

যীশু নম্রভাবে উত্তর দিলেন, “তুমি যদি ঈশ্বরকে এবং তুমি যাঁর সঙ্গে কথা বলছো তাঁকে সত্যই জানতে তবে তুমি আমার কাছেই জীবন্ত জল চাইতে। আমি সানন্দে তা দিতাম।“

মহিলাটি তাঁর দিকে আশ্চর্য্য হয়ে তাকালো। “মহাশয়,” সে বলল, “কুয়াটি গভীর। জল তোলার জন্য আপনার কিছুই নেই। কেমন করে তবে এই জল তুলবেন?”

The woman running to town

যীশু আবার বললেন, “যারা এই কূয়ার জল পান করে তারা আবার তৃষ্ণার্ত হয়। কিন্তু আমি যে জল দিতে পারি যদি তা পান  কর, তুমি কখনই তৃষ্ণার্ত হবে না।“

“মহাশয়”, মহিলাটি বলল, “এই জল আমাকে দিন যাতে আমি কখনও তৃষ্ণার্ত না হই আর জল তুলতে এখানে আসতে না হয়।

“যাও, তোমার স্বামীকে বল এবং এখানে ফিরে এসো” যীশু বললেন।

“আমার স্বামী নেই,” সে উত্তর করল।

“এটা সত্য,” যিশু বললেন, “তোমার পাঁচজন স্বামী ছিল, কিন্তু এখন যে আছে সেও তোমার স্বামি নয়।“

সে অবাক হ’ল, এ লোকটি কি করে আমার বিষয়ে জানে? “মহাশয়, আমি দেখছি আপনি একজন নবি। আমার একটি প্রশ্ন আছে। আমাদের পিতৃ-পুরুসেরা এখানে ঈশ্বরের ভজনা করে আসছে। আর আপনারা বলেন ঈশ্বরকে ভজনা করার স্থান জিরূশালেম।“

     যীশু তাকে বললেন, “কোথায় আমরা ভজনা করি তা জরুরী নয়; এখন যে কোন স্থানে প্রকৃত বিশ্বাসীরা আত্নায় ও সত্যে ঈশ্বরের ভজনা করতে পারে।“

সে বলল, “আমি জানি যাঁকে খ্রীষ্ট বলে, সেই মসীহ্ আসছেন এবং তিনি এসে সব কিছু জানাবেন।“

তখন যীশু সরলভাবে তাকে বললেন, “আমি তিনি”।

স্ত্রীলোকটি তার কলসী রেখে নগরে চলে গেল। “এসো এসো,”সে চিৎকার করে বলল, “এসো এবং একজন লোককে দেখ, আমি যা কিছু করেছি, তা সবই তিনি বলে দিয়েছেন। তিনি কি খ্রীষ্ট নন?”

তখন লোকেরা যীশুকে দেখতে নগর থেকে বের হল। অনেকেই বিশ্বাস করল যে তিনিই খ্রীষ্ট, ত্রাণকর্তা, কারণ তাদের বিষয়ে সব কিছু তিনি জানতেন। সাধু যোহনের সুসমাচার ৪:৩-৪২ পদে তোমরা এ বিষয়ে জানতে পার।

Jesus teaching the crowd

যীশু, আমাদের ভাল-মন্দ, সকল বিষয় জানেন। আমাদের জীবনে যা কিছু মন্দ কাজ করেছি তা আমরা লুকাতে চাই, কিন্তু আমরা যীশুর কাছ থেকে তা লুকাতে পারি না। অন্যায় কাজ করার জন্য আমাদের প্রাপ্য শাস্তি থেকে আমাদেরকে উদ্ধার করতে তিনি জগতে এসেছেন। আমাদের হৃদয়ে যে ভারী জোঝা অনুভব করি তা তিনি তুলে নিতে পারেন এবং আমাদেরকে শান্তি নিতে পারেন। তিনি আমাদের পাপ তুলে নিতে মৃত্যুবরণ করেছেন এবং যখন আমরা মারা যাই তখন যেন স্বর্গে বাসস্থান পেতে পারি তা সম্ভব করেছেন।

যীশুই তোমার সকল প্রয়োজন ও প্রশ্নের সমাধান। তিনি তোমার বন্ধু হতে চান। তোমার হৃদয়ের সকল শুন্যতা পূর্ণ করে দিতে চান। তোমার ভয় ও অস্থিরতার শান্তি ও স্থিরতা দিতে পারেন।

যীশু বলেন, “আমার নিকটে এসো, আমি তোমাদের বিশ্রাম দিব” (মথি ১১ঃ২৮ পদ)। শুধু ঈশ্বরের কাছে  প্রার্থনা কর এবং বল তোমার পাপের জন্য তুমি দুঃখিত। যীশুকে তোমার জীবনে আসতে অনুরোধ কর। যদি তুমি বিশ্বাসে মহান ঈশ্বরের কাছে তোমার ভার অর্পণ কর, তিনি তোমার হৃদয়ে বাস করবেন। তাঁর উপস্থিতি তোমাকে অনন্দ দেবে। তিনি তোমাকে শক্তি দেবেন ও পথ দেখাবেন। তিনি হবেন তোমার জন্য সমাধান।